সুন্দর ত্বকের জন্য যে কাজটি করেন দীপিকা, আলিয়া ও ঐশ্বরিয়া

বর্তমান আধুনিক বিশ্বের অধিকাংশ নারীরা ত্বকের যত্নের ব্যাপারে বেশ সচেতন। ত্বকের যত্ন নেওয়াটাকে বেশ সময়সাপেক্ষ ও জটিল কাজ মনে করেন অনেকে। আর করবেনই বা না কেন! এখনকার সময় বাজারে ভরে গেছে নানা ধরনের প্রসাধনী দিয়ে। বিভিন্ন ধরনের ফেস ওয়াশ, ক্লিনজার, সাবান আর সিরামের ভিড় তো আছেই, সেই সঙ্গে শুধু মুখ ধোয়ার কাজেই তিন থেকে ১০টি ধাপ অনুসরণ করতে পরামর্শ দেওয়া হয় অনেক ওয়েবসাইটে।

কিন্তু ত্বক ভালো রাখতে কি আসলে এত সময় আর শ্রম দিতে হবে? খরচ করার মতো এত সময়ই বা কোথায়? আপনি কিন্তু ত্বক ভালো রাখতে মাত্র একটি কাজ করতে পারেন, যে কাজটি করেন স্বয়ং বলিউডের নামকরা নায়িকারা।

বলিউডের নায়িকা বা যেকোনো ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির নায়িকাদের ত্বক হতে হয় একদম ঝলমলে, কারণ অভিনয়ে দক্ষতার পাশাপাশি এই সৌন্দর্যই আসলে তাদের রুটি-রুজি। তাই তারা ত্বকের বিষয়ে যত্নবান হবেন তা বলাই বাহুল্য। কিন্তু সিনেমার কাজ, মডেলিং, প্রমোশন, এর পাশাপাশি ব্যস্ত জীবন সামলেও কী করে তারা এই সৌন্দর্য ধরে রাখেন?

অনেকেই তামাসা করে বলবেন, আরে এ তো মেকআপের কারসাজি। নয়তো তারা কাঁড়ি কাঁড়ি টাকা খরচ করেন বিউটি ট্রিটমেন্টের পেছনে? হ্যাঁ, সবটাই সত্যি। কিন্তু তারপরেও নায়িকারা ত্বক ভালো রাখার চেষ্টা করেন, ছোট ছোট কিছু কাজে ত্বককে রাখেন স্বাস্থ্যোজ্জ্বল। এমনই একটি কাজ আছে, যা সবসময়ই ত্বকের উপকারে আসে। দীপিকা পাড়ুকোন, আলিয়া ভাট এমনকি ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন ছোট্ট এই কাজটি করেন ত্বক সুন্দর রাখতে। এই কাজটি হলো, সারা দিনে পর্যাপ্ত পানি পান করা।

এই ডায়েট টিপস আসলে অনেক সময়ই হেলথ অ্যান্ড বিউটি এক্সপার্টরা দিয়ে থাকেন। চেহারা সুন্দর রাখতে হলে অবশ্যই স্বাস্থ্য ভালো রাখতে হবে আর তার জন্য পর্যাপ্ত পানি পানের কোনো বিকল্প নেই। অতীতে বিভিন্ন সময়ে আলিয়া ভাট, দীপিকা পাড়ুকোন ও ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন জানিয়েছেন, তারা নিয়মিত পানি পান করেন ত্বক ভালো রাখতে। আলিয়া ভাটকে তো সম্প্রতিই জিজ্ঞেস করা হয়েছিল, তিনি উজ্জ্বল ত্বকের জন্য কী করেন? তিনি উত্তর দেন, পানি আর ব্যায়াম।

দীপিকা পাড়ুকোন ইন্ডিয়া টুডের এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, নিয়মিত ফল ও সবজি খান তিনি আর ত্বক পরিষ্কার রাখেন সবসময়। এর পাশাপাশি তিনি পর্যাপ্ত পানি খাওয়ার প্রতি খুবই মনোযোগী। অন্যদিকে ভোগ ম্যাগাজিনের এক সাক্ষাৎকারে জানান, মন ভালো থাকলে তার সৌন্দর্য ফুটে ওঠে। এ ছাড়া তিনি ত্বক আর্দ্র রাখতে নিয়মিত ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করেন ও প্রচুর পানি পান করেন।

পানি যে শুধু আমাদের মেটাবলিজম ভালো রাখে তা-ই নয়, এর পাশাপাশি তা ত্বককে আর্দ্র রাখে, এমনকি একজিমা ও সোরিয়াসিসের মতো ইনফেকশনের সঙ্গে যুদ্ধ করে। ত্বকে দাগ ও বলিরেখা বসতে বাধা দেয় পর্যাপ্ত পানি পান। তাই সুন্দর ত্বকের জন্য সারা দিনে অবশ্যই পান করুন ৬-৮ গ্লাস পানি।

Facebook Comments